আজ রবিবার 8:27 pm05 July 2020    ২১ আষাঢ় ১৪২৭    14 ذو القعدة 1441
For bangla
Total Bangla Logo

তাবলিগ পরিস্থিতি

বাংলাদেশের শীর্ষ আলেমদের কাছে আল্লামা তাকি উসমানির বিশেষ চিঠি

স্টাফ রিপোর্টার, ঢাকা

টোটালবাংলা২৪.কম

প্রকাশিত : ০৯:০৯ পিএম, ৪ জুলাই ২০১৯ বৃহস্পতিবার

পাকিস্তানের সাবেক চিফ জাস্টিস আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ তাকি উসমানি

পাকিস্তানের সাবেক চিফ জাস্টিস আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ তাকি উসমানি

বর্তমান বিশ্বের বিশেষ করে উপমহাদেশের সর্বজন শ্রদ্ধেয় শীর্ষ আলেম, পাকিস্তানের সাবেক চিফ জাস্টিস আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ তাকি উসমানি আবারো বাংলাদেশের শীর্ষ আলেমদের উদ্দেশে চিঠি পাঠিয়েছেন। তাবলিগ জামায়াতের চলমান নাজুক পরস্থিতির উন্নয়নে এর আগে পাকিস্তানের শীর্ষ ২৬ আলেমের স্বাক্ষরিত আরেকটি চিঠি তিনি পাঠিয়েছিলেন। ওই চিঠিতে তাবলিগ জামায়াতের পরিস্থিতি নিয়ে মধ্যপন্থা অবলম্বনে বাংলাদেশের আলেমদের অনুরোধ করে বলেছিলেন, আপনারা কেউ উস্কানিমূলক বক্তব্য দিবেন না। তাবলিগের দুই গ্রুপের কেউ কাউকে বাধা দিবেন না। মদিনা শরিফে অবস্থানকালে ১৫ রমজানুল মোবারকে লিখিত দ্বিতীয় চিঠিটি চট্টগ্রামের লালখান বাজার মাদরাসার প্রিন্সিপাল মুফতি ইজহারুল ইসলাম চৌধুরীর মাধ্যমে তিনি দ্বিতীয় এ চিঠি পাঠালেন। জামিয়াতু আসহাবিস সুফফার প্রিন্সিপাল শায়খুত তাফসির আল্লামা মুফতি হাসানুল কাদির-কে লেখা শায়খুল ইসলাম আল্লামা মুফতি মুহাম্মদ তাকি উসমানির চিঠির অনুবাদ টোটালবাংলা২৪ডটকম-এর পাঠকদের সামনে তুলে ধরা হলো। একই চিঠি তিনি দেশের বরেণ্য অন্য আলেমদের কাছেও পাঠিয়েছেন। 


পরম শ্রদ্ধেয় হযরত উলামায়ে কেরাম, আস সালামু আলাইকুম ওয়া রাহমাতুল্লাহি তায়ালা ওয়া বারকাতুহু।


আশা করি, আপনি ভালো আছেন। বর্তমানে তাবলিগ জামায়াতের ভেতর যে দ্বন্দ্ব-পেরেশানি চলছে, তা নিঃসন্দেহে আমাদের খারাপ আমলের কারণেই। ফলে তা আজ নানান স্থানে ছড়িয়ে পড়ছে। এ বিষয়ে আপনি শুধু অবগতই নন, চিন্তিতও নিশ্চয়ই।


বিভিন্ন দেশে এ দ্বন্দ্বের খারাপ প্রতিক্রিয়া খোলা চোখেই দেখা যাচ্ছে। আমার জানা মতে, বাংলাদেশে এই দ্বন্দ্ব অনেক ভয়ঙ্কর রূপ ধারণ করেছে। এমনকি তা কল্পনার সকল স্তর ও সীমা অতিক্রম করেছে। দোষচর্চা, অপবাদ এবং অশ্লীল বাক্য ছুঁড়াছুড়ির বাজার গরম হয়ে উঠেছে। মন্দনামে ডাকা, অন্যকে হেয় মনে করা, অসম্মানের সঙ্গে সম্বোধন এবং পরস্পরের মধ্যে শারীরিক আক্রমণ পর্যন্ত করা হচ্ছে।


দুই গ্রুপের ভেতর কারা হকপন্থী? কারাই বা আছেন ভুলের সাগরে? এসব বিষয়ে আল্লাহর রহমতে নানান পদ্ধতিতে কাজ চলছে। এ অবস্থায় আমার অনুরোধ, আপনাদের মতো সম্মানিত আলেমগণ নিজ নিজ ভক্ত-অনুসারীদের মধ্যে প্রভাব খাটিয়ে হলেও সাধ্যমতো কমপক্ষে পরিবেশকে নিয়ন্ত্রণে রাখতে চেষ্টা করবেন। উভয় পক্ষের হযরতদের একে অপরের বিরুদ্ধে গলাবাজি, অসম্মানসূচক শব্দ প্রয়োগ এবং লাঞ্ছনাদায়ক কথা বলা থেকে মুক্ত থাকবেন। বিশেষভাবে এ কথাটি প্রচার করবেন, এই বিরোধ যেন কিছুতেই শত্রুতায় রূপ না নেয়। 


আল্লাহ তাবারাকা ওয়া তায়ালা আপনাকে ইলমের যে মর্যাদা দান করেছেন, তাতে করে আশা করা যায়, এ বিষয়ে আপনার আন্তরিক চেষ্টা সফল হবে। প্রয়োজনে দেশের বিভিন্ন এলাকার সম্মানিত উলামায়ে কেরামকে নিয়ে একটি যৌথসভার আয়োজন করা যেতে পারে। সেখানে দুই পক্ষের সকলের উপস্থিতিতে আলোচনা করলে তাতে সমস্যার দ্রুত সমাধান আশা করা যায়। এতে উদ্যোক্তাদের অনেক সওয়াবও হবে, ইনশাআল্লাহ।


ওয়াস সালাম-
বান্দা মুহাম্মদ তাকি উসমানি
১৫ রমজানুল মোবারক ১৪৪০ হিজরি

জাতীয়-এর সর্বশেষ খবর