আজ বুধবার 1:00 am20 September 2017    ৪ আশ্বিন ১৪২৪    27 ذو الحجة 1438
For bangla
Beta Total Bangla Logo

হাফেজ্জী হুজুরের নাম মুছে দেওয়া এবং মূর্তি একই চক্রান্তের ফসল

দেশ ডেস্ক

টোটালবাংলা২৪.কম

প্রকাশিত : ১০:৩৯ পিএম, ২৩ ফেব্রুয়ারি ২০১৭ বৃহস্পতিবার

মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী

মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী

তওবার রাজনীতির প্রবর্তক আমিরে শরিয়ত মাওলানা মুহাম্মাদুল­াহ হাফেজ্জী হুজুর (রহ.)-এর নাম রাস্তা থেকে মুছে দেওয়ার সিদ্ধান্তের তীব্র প্রতিবাদ জানিয়েছে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন। দলটির নায়েবে আমির ও ঢাকা সিটি আমির মাওলানা মুজিবুর রহমান হামিদী বলেছেন, হাফেজ্জী হুজুরের নাম রাস্তা থেকে মুছে দেওয়া এবং হাইকোর্টের সামনে মূর্তি স্থাপন করা একই সূত্রে গাথা। একটি কুচক্রী মহল দেশকে নাস্তিকায়ন করার জন্যই বিভিন্ন রাস্তা থেকে আলেমদের নাম মুছে দেওয়া এবং হাহাইকোর্ট ও জাতীয় ঈদগাহের মত গুরুত্বপূর্ণ স্থানে মূর্তি স্থাপন করা হচ্ছে। এটা মূলত ইসলাম ও উলামায়ে কেরামের বিরুদ্ধে উদ্দেশ্যপ্রণোদিত ও দূরভিসন্ধিমূলক ষড়যন্ত্র ও চক্রান্ত। তিনি অবিলম্বে হাফেজ্জী হুজুরের নামে রোডের নাম বহাল রাখতে মাননীয় প্রধানমন্ত্রীর হস্তক্ষেপ কামনা করেছেন।

 

বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি ২০১৭) সকালে বাংলাদেশ খেলাফত আন্দোলন ব্রাহ্মণবাড়িয়া জেলা শাখার এক সভায় প্রধান অতিথির বক্তব্যে তিনি এসব কথা বলেন। জেলা কমিটির আহ্বায়ক হাফেজ মাওলানা আবুল কাসেম সভায় সভাপতি ছিলেন। বক্তব্য দেন মাওলানা আনোয়ার হোসাইন, মাওলানা কামাল উদ্দিন, মাওলানা আল আমিন খান, হাফেজ মাওলানা ওলিউল­াহ, মুফতি জিয়াউদ্দিন, মাওলানা হেলাল উদ্দিন প্রমুখ।


মাওলানা হামিদী বলেন, হাফেজ্জী হুজুর (রহ.) ছিলেন সকল মানুষের শ্রদ্ধার পাত্র। স্বাধীন বাংলাদেশের স্থপতি, জাতির জনক বঙ্গবন্ধু শেখ মুজিবুর রহমান, সাবেক প্রেসিডেন্ট জিয়াউর রহমান, হুসেইন মুহম্মদ এরশাদ, বিচারপতি আবু সাঈদ চৌধুরী, অধ্যাপক ডা. বদরুদ্দৌজা চৌধুরী, সাবেক পররাষ্ট্রমন্ত্রী আবদুস সামাদ আজাদসহ সকল বরেণ্য ব্যক্তিরাই হজরত হাফেজ্জী হুজুর (রহ.)-কে শ্রদ্ধা করতেন। তাঁর সান্নিধ্যে আসতেন ও দোয়া নিতেন। বর্তমান মাননীয় প্রধানমন্ত্রীও হজরত হাফেজ্জী হুজুর (রহ.)-কে শ্রদ্ধার সঙ্গে স্মরণ করেন। তাঁর জীবদ্দশায় তাঁর কাছে দোয়া নিয়েছেন এবং তিনি তাকে নানা বলে সম্বোধন করতেন। হাফেজ্জী হুজুরের ইনতেকালের পর তিনি হুজুরের বাসবভনে আসেন এবং সমবেদনা জানান। আওয়ামী লীগ নেতা ও ঢাকা সিটির সাবেক মেয়র মরহুম মোহাম্মদ হানিফ হাফেজ্জী হুজুর (রহ.)-এর নাম চিরস্মরণীয় করে রাখতে রাজধানীর গোলাপ শাহ মাজার থেকে রোডের নাম রেখেছিলেন “মাওলানা মুহাম্মদুল­াহ হাফেজ্জী হুজুর সড়ক”।


তিনি বলেন, স্বাধীনতার ৪৫ বছর পর আজ যারা হজরত হাফেজ্জী হুজুর (রহ.)-এর নাম স্বাধীনতাবিরোধীদের তালিকায় দিয়ে হাইকোর্টে মামলা করেছে, তারা অর্বাচীন, ইতিহাস সম্পর্কে অজ্ঞ, ইসলাম ও আলেমবিদ্বেষী। হাফেজ্জী হুজুরকে নিয়ে কোনো ধরনের চক্রান্ত দেশের ইসলামপ্রিয় জনতা সহ্য করবে না। ঘাদানিক নেতা শাহরিয়ার কবির, মুনতাসির মামুন গংরা ইসলাম, আলেমসমাজের সুনাম ও গৌরবময় ইতিহাস সহ্য করতে না পেরে জাতিকে বিভক্ত ও বিভ্রান্ত করার অপচেষ্টা করছে। দেশপ্রেমিক নামদারী একটি ইসলামবিদ্বেষী কুচক্রী মহল এদেশের গোটা আলেমসমাজকে ঢালাওভাবে স্বাধীনতাবিরোধী প্রমাণে মরিয়া হয়ে উঠেছে। এটা মূলত ইসলামপ্রিয় জনতার সঙ্গে সরকারের বিরোধ বাঁধিয়ে দেশে বিশৃঙ্খলা সৃষ্টির সূক্ষ্ম ষড়যন্ত্র। এই ষড়যন্ত্রের বিরুদ্ধে সকলকে সোচ্চার হতে হবে।

 

আরও পড়ুন :

 

# বাংলাভাষা থেকে মুসলমানি শব্দ বাদ দেওয়ার চক্রান্ত চলছে