Total Bangla Logo
For bangla আজ বৃহস্পতিবার 12:40 am
27 July 2017    ১১ শ্রাবণ ১৪২৪    02 ذو القعدة 1438

বদ্রির হ্যাটট্রিকের জবাবে মুম্বাইকে জেতালেন পোলারড

ক্রিকেট সাংবাদিক, ঢাকা

টোটালবাংলা২৪.কম

প্রকাশিত : ১১:০১ পিএম, ১৪ এপ্রিল ২০১৭ শুক্রবার

কিয়েরন পোলারড

কিয়েরন পোলারড

 
স্যামুয়েল বাডরির স্পিনে ডুবতে বসেছিল মুমবাই ইনডিয়ান্স। কিন্তু কিয়েরন পোলারডের দুর্দান্ত ব্যাটিংয়ে আইপিএলে ইতিহাস গড়ে জিতেছে তারা। ১০ রানের কম ব্যবধানে চার উইকেট হারানোর পরও জেতা প্রথম দলের মর্যাদা পেয়েছে সাবেক চ্যাম্পিয়নরা। চোট থেকে ফিরে শুরুটা ভালো হলো না বিরাট কোহলির। তার দল রয়্যাল চ্যালেনজারস  বেঙ্গালুরুকে ৪ উইকেটে হারিয়েছে মুমবাই। 
 
উদ্বোধনী জুটিতে ক্রিস গেইলের সঙ্গে কোহলি- তাদের দেখেই বেঙ্গালুরুর চিন্নাস্বামী স্টেডিয়াম মাতোয়ারা। শক্তিশালী দুই ব্যাটসম্যানকে নিয়ে বেঙ্গালুরু শুরু করে চতুর্থ ম্যাচের খেলা। ইনিংস শেষে দলটির স্কোরবোর্ড আরেকবার হতাশ করে- ২০ ওভারে ৫ উইকেটে ১৪২ রান। বল হাতে নিয়ে মুমবাই ইনডিয়ান্সকে চ্যালেঞ্জ করে ম্যাচে ফিরতে চেষ্টা করেছিল তারা। কিন্তু সফল হয়নি। আইপিএলের দশম আসরে চার ম্যাচ শেষে বেঙ্গালুরুকে তৃতীয় হারের স্বাদ দিয়েছে মুম্বাই।
 
টি-টোয়েন্টিতে ১০ হাজার রান পূর্ণ করার প্রত্যাশা নিয়ে মাঠে নেমেছিলেন গেইল। এজন্য ক্যারিবীয় তারকাকে করতে হতো ৩৫ রান। কিন্তু হারদিক পানডের বলে পারথিব প্যাটেলকে ক্যাচ দেন গেইল, থামতে হয় ২২ রানে।
 
মুম্বাইয়ের বোলারদের নিয়ন্ত্রিত বোলিংয়ের সামনে শুধুমাত্র কোহলি নিজেকে মেলে ধরতে পেরেছিলেন। ৪৭ বলে ৫ চার ও ২ ছয়ে ৬২ রানে আউট হন বেঙ্গালুরু অধিনায়ক। আরেক তারকা ব্যাটসম্যান এবি ডি ভিলিয়ার্স মাত্র ১৯ রান করেন।
 
মিচেল ম্যাকক্লেনাঘান মুম্বাইয়ের পক্ষে সর্বোচ্চ ২ উইকেট নেন।
 
হ্যাটট্রিক শুরু করছেন বাডরি
লক্ষ্যটা ১৪৩ রানের হলেও সহজে পার পায়নি মুমবাই। স্যামুয়েল বাডরি তাদের পথ কঠিন করে তুলেছিলেন। বেঙ্গালুরুতে নিজের অভিষেক ম্যাচে আইপিএল ক্যারিয়ারে প্রথম হ্যাটট্রিক করেন এ স্পিন বোলার। নিজের তৃতীয় ওভারে দ্বিতীয় বলে প্রথমে প্যাটেল, এর পর ম্যাকক্লেনাঘানকে আউট করেন। হ্যাটট্রিক বলে ক্যারিবীয় তারকার শিকার হন মুমবাইয়ের অধিনায়ক রোহিত শরমা।
 
আগের ওভারেই স্টুয়ারট বিন্নি ফেরান মুম্বাইয়ের ওপেনার জোশ বাটলারকে। মাত্র ৬ বলের ব্যবধানে ৭ রানে চার উইকেট হারায় সফরকারীরা। জয়ের সুবাস যেন পাচ্ছিল বেঙ্গালুরু। ফর্মের তুঙ্গে থাকা নিতিশ রানাকে (১১) দলীয় ৩৩ রানে ফিরিয়ে জয় উদযাপনের প্রস্তুতি নিচ্ছিল কোহলিরা।
 
কিন্তু সব হিসাবনিকাশ পাল্টে দেন কিয়েরন পোলারড। তার ব্যাটিং ঝড়ে ৭ বল বাকি থাকতে টানা তৃতীয় জয় পায় মুম্বাই। যদিও জয় থেকে ১৭ রান দূরে থাকতে আউট হতে হয় পোলার্ডকে। এ ক্যারিবীয় ব্যাটসম্যান ৪৭ বলে ৩ চার ও ৫ ছয়ে ৭০ রান করে ম্যাচসেরা হন।
 
জয়কে কিছুটা এগিয়ে তরান্বিত করতে আরও অবদান রাখেন ক্রুনাল পানডে, ৩০ বলে ৩৭ রানে অপরাজিত ছিলেন তিনি। ১৮.৫ ওভারে হার্দিক পানডের (৯*) ব্যাট থেকে আসে জয়সূচক ৬টি। ৬ উইকেট হারিয়ে মুম্বাই করে ১৪৫ রান।
 
টানা তিন জয়ে চার ম্যাচ শেষে ৬ পয়েন্টে শীর্ষে উঠে এসেছে ‍মুমবাই। সমান খেলে মাত্র একটি জয় ও তিনটি হারে ছয় নমবরে বেঙ্গালুরু।- ক্রিকইনফো