আজ রবিবার 5:14 pm09 August 2020    ২৫ শ্রাবণ ১৪২৭    19 ذو الحجة 1441
For bangla
Total Bangla Logo

মানুষেরই বিয়ে হচ্ছে না

পশুবিয়ে হিন্দু সংস্কৃতি : ইসলামী আন্দোলন

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

আলজাজিরাবাংলা.কম

প্রকাশিত : ০৭:২৩ পিএম, ২৩ সেপ্টেম্বর ২০১৬ শুক্রবার

পশুবিয়ে হিন্দু সংস্কৃতি : ইসলামী আন্দোলন

পশুবিয়ে হিন্দু সংস্কৃতি : ইসলামী আন্দোলন

আলী মোস্তফা বলেন, যে দেশে অনেক গরিব, অসহায় মানুষ কন্যাদায়গ্রস্ত। টাকার অভাবে বিয়ে দিতে পারছে না, সেখানে পশুর বিয়ে দেয়ার মত ঘটনা আমাদেরকে বিস্মিত ও মর্মাহত করে। ভারতে কুকুরের সাথে, ব্যাঙের সাথে, বটগাছের সাথে বিয়ের রেওয়াজ থাকলেও বাংলাদেশে এধরনের অপসংস্কৃতির সুযোগ নেই।

তিনি প্রশ্ন করেন, কৌশলে হিন্দু সংস্কৃতির আমদানী করে ‘পশুর বিয়ে’ বিকৃত মস্তিষ্কের শুধুই পাগলামি নাকি বিজাতি সংস্কৃতি চর্চার ওকালতি? নাকি পরিকল্পিতভাবে দেশের স্কুল পড়ুয়া শিশু-কিশোর-কিশোরীদের মগজ ধোলাই? আমাদের দেশের সংস্কৃতি বাদ দিয়ে ভারতকে খুশি করতে এসব চর্চা করা হচ্ছে। বিষয়টি গভীরভাবে ভাবতে হবে। চিটাগাং কর্তৃপক্ষ ভারতকে খুশি করতেই এ সংস্কৃতি চালু করেছে। ভবিষ্যতে এ ধরনের নোংরামী থেকে বিরত থাকতে সকলের প্রতি আহ্বান জানানো হয়।

ইসলামী আন্দোলন বাংলাদেশ ঢাকা জেলা শাখার মজলিসে আমেলার সভায় তিনি এসব কথা বলেন। সেক্রেটারী আলহাজ্ব শাহাদাত হোসেনের পরিচালনায় অনুষ্ঠিত সভায় অন্যান্যের মধ্যে বক্তব্য রাখেন জেলা সহ-সভাপতি আলহাজ্ব হানিফ মিয়া, আব্দুর রাজ্জাক বেপারী, জয়েণ্ট সেক্রেটারী অধ্যাপক ডা. কামরুজ্জামান, সাংগঠনিক সম্পাদক, মুহা. হাসমত আলী, মাওলানা নূর হোসাইন, মুফতী আব্দুল করীম, মাওলানা ইলিয়াস হোসাইন, মাওলানা জহিরুল ইসলাম, মুফতী ইজহারুল ইসলাম, হাজী আব্দুল মালেক, ডা. দেলোয়ার হোসেন, টি এম মাহফুজুর রহমান প্রমুখ।

নেতৃবৃন্দ বলেন, নাস্তিক্যবাদী ও হিন্দুত্ববাদী সিলেবাসের কুফল হলো পশুর বিয়ের আয়োজন। তাই হিন্দুয়ানী সিলেবাস বাতিল না করলে ঈমানদার জনতা মুসলমানিত্ব রক্ষায় সর্বত্র আন্দোলন গড়ে তুলতে বাধ্য হবে।

রাজনীতি-এর সর্বশেষ খবর