আজ বৃহস্পতিবার 10:05 pm21 September 2017    ৬ আশ্বিন ১৪২৪    29 ذو الحجة 1438
For bangla
Beta Total Bangla Logo

খালেদা-তারেককে সব মামলায় বেকসুর খালাস দিতে হবে : ইসলামিক ইউনিয়ন

চৈতি খন্দকার, সাব-এডিটর

টোটালবাংলা২৪.কম

প্রকাশিত : ০৪:৪২ এএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৭ রবিবার | আপডেট: ০৪:৪৬ এএম, ১৬ এপ্রিল ২০১৭ রবিবার

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও তাঁর পুত্র তারেক রহমান

বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া, দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান ও তাঁর পুত্র তারেক রহমান

বাংলাদেশ ইসলামিক ইউনিয়নের প্রতিষ্ঠাতা ও বিশিষ্ট আলেম সাংবাদিক জনাব হাসানুল কাদির বিএনপি চেয়ারপারসন বেগম খালেদা জিয়া এবং দলটির সিনিয়র ভাইস চেয়ারম্যান তারেক রহমানের বিরুদ্ধে দায়ের করা প্রতিটি মামলায় বেকসুর খালাস দাবি জানিয়ে প্রধানমন্ত্রী শেখ হাসিনাকে বলেন, আপনি জীবনের সব সুখ ইতিমধ্যেই পেয়েছেন। আপনার নামেও অনেক মামলা ছিল, সেগুলো যেভাবে বিশেষ ক্ষমতায় প্রত্যাহার করে নিয়েছেন, একইভাবে খালেদা-তারেকের মামলাগুলোও প্রত্যাহার করুন। নির্দোষ বিএনপি নেতাদের হয়রানিমূলক সব মামলা প্রত্যাহার করতে হবে দাবি জানিয়ে হাসানুল কাদির বলেন, নইলে অচিরেই এমন দিন আসবে, যখন শেখ হাসিনাকেও খালেদা জিয়ার চেয়ে আরও কঠিন ভাগ্য বরণ করতে হবে। রবিবার (১৬ এপৃল ২০১৭) গণমাধ্যমে পাঠানো এক বিবৃৃতিতে তিনি এসব কথা বলেন।

 

আরও পড়ুন : বিএনপির ১৯ দফা, তারেককে দেশে আনতে রাজপথ গরম করবেন খালেদা


জনাব হাসানুল কাদির বলেন, সুপৃম কোর্ট এলাকা থেকে অভিশপ্ত গৃক মূর্তি থেমিসকে ভেঙে সেখানে দৃষ্টিনন্দন অন্য কিছু স্থাপন এবং বাংলাদেশের ইতিহাসের কুখ্যাত কুলাঙ্গার চিফ জাসটিস সুরেন্দ্র কুমার সিনহাকে বরখাস্ত না করলে বাংলাদেশ ইসলামিক ইউনিয়নের গোল্ডেন স্কোয়াড আগামী শুক্রবারের পর যে কোনো সময় আইন হাতে তুলে নিলে সেজন্য সরকারকেই দায় নিতে হবে।

 

আরও পড়ুস : তারেককে দেশে আনতে হবে, কারাবন্দির দিন পালন করলেই হবে না


ইসলামিক ইউনিয়ন প্রতিষ্ঠাতা বলেন, শেখ হাসিনা এবং খালেদা জিয়া দুজন নারীনেত্রী হলেও তাঁদের মধ্যে বিশাল ব্যবধান রয়েছে। দুজনই দেশের কল্যাণে অনেক অবদান রেখেছেন। রাজনীতি থেকে আগামী নির্বাচনের পর দুজনকেই অবসরে চলে যাওয়ার পরামর্শ দিয়ে জনাব হাসানুল কাদির বলেন, স্বপ্নের সোনার বাংলা, অপার সম্ভাবনার ডিজিটাল বাংলাদেশ নির্মাণে এরই মধ্যে বাংলাদেশ ইসলামিক ইউনিয়নের বিভিন্ন সহযোগী বাহিনী কাজ করছে। বাংলাদেশে কোনো ইহুদির অস্তিত্ব রাখা হবে না বলে হুঁশিয়ার করে দিয়ে তিনি বলেন, সোভিয়েট ইউনিয়নের পর ইউরোপীয় ইউনিয়ন এতদিন দুনিয়া চালিয়েছে। গত ৮ মার্চ ২০১৭ থেকে ইসলামিক ইউনিয়ন নতুন পৃথিবীর দায়িত্ব নিয়ে কাজ করছে। ইসলামিক ইউনিয়নের সদর দফতর বাংলাদেশে নির্মাণ হচ্ছে। টোটালবাংলা মিডিয়া নেটওয়ার্ক, টোটালবাংলা মিডিয়া সিটি বাংলাদেশেই তৈরি হচ্ছে।

 

 

হাসানুল কাদির

 

 

টেনজি প্রযুক্তি নিয়ে আগামী বছরের ১ এপৃল রয়েলটেন টেলিভিশনের যাত্রা শুরু হবে। চলতি বছরের ১০ সেপ্টেম্বর ৭টি ভাষায় TotalBangla24.com এবং এর পাশাপাশি বাংলা, ইংরেজি ও আরবি ভাষায় কয়েকটি দৈনিক পত্রিকা এবং বিভিন্ন ভাষায় ১৩টি ম্যাগাজিনের আনুষ্ঠানিক উদ্বোধন হবে। এসব কাজে বাংলাদেশ সরকারকে সহযোগিতা করার অনুরোধ জানিয়ে জনাব হাসানুল কাদির বলেন, কুখ্যাত সন্ত্রাসী নেতানিয়াহু এবং অবৈধ রাষ্ট্র ইসরায়েলকে দুনিয়ার বুকে রাখতে দেওয়া হবে না। এই পৃথিবীতে ইহুদিদের কোনো অস্তিত্ব মেনে নেওয়া হবে না। যেখানেই ইহুদিদের এজেন্টকে পাওয়া যাবে, সেখানেই আক্রমণ করা হবে বলে জনাব হাসানুল কাদির বলেন, বসুন্ধরা, যমুনা এবং প্রাণ-আরএফএল গ্রুপ ইহুদিদের এদেশীয় বাণিজ্যিক এজেন্ট। তাদের সবধরনের কার্যক্রম সরকারি প্রশাসক বসিয়ে নিয়ন্ত্রণ করার দাবি করে অন্য কোনো নামে পরিচালনা করতে হবে, নইলে দেশ ও বিশ্ববাসী তাদের পণ্য বর্জন শুধু নয়, তাদের ওপর আক্রমণও করতে বাধ্য হবে। এর দায় বাংলাদেশ ইসলামিক ইউনিয়ন নেবে না। সরকারকেই নিতে হবে।

 

আরও পড়ুন : জিয়া ফ্যামেলির কঠিন দুর্দিন, এজন্য মূল দায়ী কে বা কারা?
 
জনাব হাসানুল কাদির বলেন, আগামী পারলামেন্ট অধিবেশনেই অভিশপ্ত কাদিয়ানিদের সরকারিভাবে অমুসলিম ঘোষণা করতে হবে। জাতীয় মসজিদ বায়তুল মোকাররমে নতুন দুই জন যোগ্য খতিব মন্ত্রী ও প্রতিমন্ত্রী মর্যাদায় নিয়োগ দিতে হবে। বায়তুল মোকাররম এখন কাদিয়ানিদের হাতে জিম্মি। একে সাধারণ তৌহিদি জনতার স্বাভাবিক ও সুষ্ঠুভাবে নামাজ আদায়ের উপযোগী করে তুলতে হবে।-প্রেস রিলিজ