আজ বুধবার 12:59 am20 September 2017    ৪ আশ্বিন ১৪২৪    27 ذو الحجة 1438
For bangla
Beta Total Bangla Logo

দাবি, কওমি সনদের স্বীকৃতি

আগামী বৃহস্পতিবার গোপালগঞ্জে মহাসমাবেশ

নিজস্ব প্রতিবেদক, ঢাকা

টোটালবাংলা২৪.কম

প্রকাশিত : ০১:০৭ এএম, ২২ অক্টোবর ২০১৬ শনিবার | আপডেট: ০২:২৮ পিএম, ২৭ অক্টোবর ২০১৬ বৃহস্পতিবার

আগামী বৃহস্পতিবার গোপালগঞ্জে মহাসমাবেশ

আগামী বৃহস্পতিবার গোপালগঞ্জে মহাসমাবেশ

আগামী বৃহস্পতিবার গোপালগঞ্জের পৌরপার্কে মহাসমাবেশ অনুষ্ঠিত হবে। এর আয়োজক কওমি মাদরাসাগুলোর একটি আঞ্চলিক বোর্ড বেফাকুল মাদারিসিল কওমিয়া গওহরডাঙ্গা। বৃহস্পতিবার (২০ অক্টোবর) অনুষ্ঠিত বোর্ডের সভায় এ সিদ্ধান্ত নেওয়া হয়। বৈঠকে অংশ নেওয়া নেতৃবৃন্দ কওমি মাদরাসার ইতিহাস, ঐতিহ্য ও স্বতন্ত্র বৈশিষ্ট্য অক্ষুণ্ন রেখে দারুল উলুম দেওবন্দের মৌলিক আট নীতির আলোকে কওমি মাদরাসা শিক্ষা সনদের সরকারি স্বীকৃতি দাবি করেছেন।

গওহরডাঙ্গা মাদরাসার মুহতামিম ও বোর্ডের চেয়ারম্যান মুফতি রুহুল আমীন এতে সভাপতি ছিলেন। সভায় দক্ষিণবঙ্গের অসংখ্য মাদরাসার মুহতামিম ও শিক্ষকগণ অংশ নেন।
 
সভাপতির বক্তব্যে মুফতি রুহুল আমীন বলেন, কওমি মাদরাসা সনদের স্বীকৃতি সব থেকে বেশি প্রয়োজন আমার। কারণ, আমি যাদের প্রতিনিধিত্ব করি, তাদের ভবিষ্যৎ কওমি সনদের সঙ্গে সম্পৃক্ত। সনদের স্বীকৃতি না থাকার ফলে লুকিয়ে লুকিয়ে কওমির ছেলেরা স্কুল-কলেজ ও আলিয়া থেকে পরীক্ষা দিয়ে সনদ নেয়। আমাদের মেধাগুলো তাদের জনসম্পদ হিসেবে গণ্য হয়। আমাদের মেধাগুলোকে আমাদের মাঝে কাজে লাগানোর জন্যই সনদের স্বীকৃতি দরকার। এ স্বীকৃতি কীভাবে নিলে কওমি মাদরাসার স্বকীয়তা বজায় থাকবে, সেভাবেই তা নেওয়া হবে। এ বিষয়ে অপব্যাখ্যা বা ভুল বুঝাবুঝির সুযোগ নেই।
 
মুফতি রুহল আমীন দেশের নেতৃস্থানীয় আলেমদের উদ্দেশে বলেন, আপনাদের কাছে আমার আরজ, কওমি মাদরাসায় পড়তে আসা শিক্ষার্থীরা আমাদের আমানত। এ আমানত অন্যের হাতে আমরা তুলে দিতে পারি না। বিষয়টি নিয়ে ভাবুন। ছোট-খাটো মতানৈক্য ভুলে কওমি সনদের স্বীকৃতির পক্ষে এক হয়ে কাজ করুন। ঐক্যমতের ভিত্তিতে কওমি সনদের স্বীকৃতি আদায় করে নিতে হবে। এর বিকল্প নেই। এখানে পদ-পদবি মুখ্য নয়। নেতৃত্ব কোনো বিষয় নয়।

তিনি সরকারকে বলেন, কওমি মাদরাসা শিক্ষা কমিশন-২০১২ স্বীকৃতির জন্য যেসব শর্ত দিয়েছে, সেগুলো মেনে সনদের স্বীকৃতি দিতে হবে। কমিশনের রিপোর্টের বাইরে গিয়ে কোনো কিছু চাপিয়ে দেওয়া চলবে না। তাহলে সেটা কওমি মাদরাসা শিক্ষা বোর্ড গওহরডাঙ্গা মানবে না।

বৈঠকে আরও উপস্থিত ছিলেন, বোর্ডের মহাসচিব মাওলানা শামছুল হক, মাওলানা নুরুল হক, মাওলানা কবিরুল ইসলাম, মুফতি নুরুল ইসলাম, মাওলানা আব্দুল্লাহ, মাওলানা ফরিদ আহমাদ, মাওলানা আবুল কালাম, মাওলানা আবদুর  রাকিব, মাওলানা ঝিনাত আলী, মাওলানা আব্দুর রাশেদ, মাওলানা হাবিবুর রহমান, মাওলানা ফখরুল ইসলাম প্রমুখ।-প্রেস রিলিজ