আজ শুক্রবার 9:07 am10 July 2020    ২৫ আষাঢ় ১৪২৭    19 ذو القعدة 1441
For bangla
Total Bangla Logo

অপ্রিয় চাকরি ছাড়ার আগে ২ কাজ করুন

সাদেকা হাসান

আলজাজিরাবাংলা.কম

প্রকাশিত : ০৯:০৩ পিএম, ১৭ সেপ্টেম্বর ২০১৬ শনিবার

অপ্রিয় চাকরি ছাড়ার আগে ২ কাজ করুন

অপ্রিয় চাকরি ছাড়ার আগে ২ কাজ করুন

*%

 

আপনার কোনো কারণে চাকরিটি একেবারেই অপছন্দনীয় হয়ে উঠেছে। এতে হয়ত আপনি চাকরিটি ছেড়ে দেওয়ার বিষয়ে মনে মনে সিদ্ধান্ত নিয়েই ফেলেছেন। চাকরিটি ছাড়ার আগে সবারই সিদ্ধান্তটি সঠিক হবে কিনা, চিন্তা করে নেওয়া উচিত। রাগের মাথায় কোনো সিদ্ধান্ত নেওয়া উচিত নয়।
আপনি বর্তমান চাকরির সুবিধা ও অসুবিধার একটি তালিকা তৈরি করলে বিষয়টি বুঝতে পারবেন। এক্ষেত্রে তালিকাটি যে কোনো অংশেই ছোট হবে না, এটা নিশ্চিত করেই বলা যায়। কারণ প্রত্যেক চাকরিরই সুবিধা-অসুবিধা রয়েছে। এসব সুবিধা-অসুবিধা মেনেই যে কোনো চাকরি নির্ধারিত হয়। আপনার বেতন কম হলে চাকরিতে কাজের চাপ কম হবে। আবার বহু দায়িত্ব যখন থাকে, তখন স্বভাবতই বেতন ও অন্যান্য সুযোগ-সুবিধা বেশি হবে। আপনার আদর্শ চাকরি অনুসন্ধান করলে হয়ত সারা জীবনেও তা খুঁজে পাওয়া যাবে না।

সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করুন
ধরুন আপনি কোনো একটি কারণে বর্তমান কর্মস্থলের প্রতি বিরক্ত হয়ে গিয়েছেন। এক্ষেত্রে আপনার উচিত হবে, সমস্যাটি সমাধানের কোনো উপায় আছে কি না, জেনে নেওয়া। আপনার বেতন কম থাকলে বেতন বাড়ানো যায় কিনা, আলোচনা করুন। অন্য কোনো সমস্যা থাকলে তা সমাধান করা যায় কিনা, নানাভাবে চেষ্টা করুন।
নতুন চাকরি খোঁজা এখন মোটেই সহজ কাজ নয়। এজন্য আপনার যত পরিশ্রম করতে হবে, বর্তমান চাকরিতেও সে প্রচেষ্টায় আপনি ভালো অবস্থানে যেতে পারেন।
অনেকে আবার নতুন চাকরিতে ট্র্যাক পরিবর্তনের কথা চিন্তা করেন। যদিও প্রায়ই ট্র্যাক পরিবর্তনের ফলে সবকিছু নতুন করে শুরু করতে হয়। এতে সুযোগ-সুবিধা অনেকেরই কমে যায়।
বর্তমান অবস্থার তুলনায় ভালো সুযোগ-সুবিধায় নতুন একটি চাকরি আপনি পেয়ে গেলে তা পরিবর্তন না করার কোনো কারণ নেই। আপনার চাকরি ছাড়ার পরে বেকার হয়ে গেলে বিষয়টির আগে সমস্যা সমাধানের একটু চেষ্টা করাই উচিত।

আপনার যোগ্যতা অনুযায়ী পরিকল্পনা করুন
আপনার নিজের যেসব যোগ্যতা ও অভিজ্ঞতা রয়েছে, তার একটি তালিকা করুন। এরপর এ যোগ্যতা অনুযায়ী আপনার কেমন সুযোগ-সুবিধা পাওয়া উচিত, তার একটি তালিকা করুন। এর থেকে আপনার সুযোগ-সুবিধা কম হলে এর কারণ নির্ণয় করুন।
কর্মস্থলে আপনার সমস্যার মূল কারণ নির্ণয় করুন। আপনার সমস্যা নির্ণয় করা সম্ভব হলে তার সমাধান বের করাও সহজ হয়ে যাবে।
এক্ষেত্রে সমস্যা অনেক গভীর হলে এবং এর সমাধান করা আপনার পক্ষে কোনোভাবেই সম্ভব না হলে চাকরি ছাড়ার সিদ্ধান্ত আপনার সঠিক হতে পারে। যতক্ষণ বিষয়টি আপনার হাতের বাইরে চলে না যাচ্ছে, ততক্ষণ তা সমাধানের চেষ্টা করাই ভালো।
সমস্যা সমাধানের জন্য আপনার উচিত হবে একটি কার্যকর পরিকল্পনা তৈরি করে নেওয়া। এরপর সে পরিকল্পনা অনুযায়ী সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করুন। সম্পূর্ণ বিষয়টি কাজ না করলে অবশ্যই নতুন চাকরি দেখে নেবেন। তার আগে সমস্যা সমাধানের চেষ্টা করা উচিত।